Benefits of Emerald Stone | Benefits of Panna Stone | পান্না পাথরের উপকারিতা বা গুনাগুণ

পান্না পাথর (Emerald Stone) মধ্যম থেকে গাঢ় সবুজ রঙের সুন্দর রত্ন পাথর। ফারসি ও আরবীতে এটিকে বলা হয় জমরুদ। ষড়ভূজাকৃতির কেলাস আকারে এটি পাওয়া যায়। বেশির ভাগ পান্নাই ঘোলাটে বর্ণের এবং খুঁতযুক্ত। নিখুঁত ও সুন্দর পান্না খুবই দামি রত্ন। একই ধরনের খনিজ পাথরের সাথে পান্নার পার্থক্য হলো শুধু পান্নাই অভ্র শিলাস্তরে বা চুনাপাথরে পাওয়া যায়। সবচেয়ে বেশি পাওয়া যায় কলম্বিয়ার মুজো এবং এল সিভর খনিতে। উরাল পর্বতমালার টকোভোয়া-তে আভ্রখনিতেও পাওয়া যায়। অবশ্য সেখানে তা বেরিলিয়ামের আকরিক ক্রিসোবেরিল ও ফেনাকাইটের সঙ্গে মিশ্রিত অবস্থায় থাকে। এছাড়াও অস্ট্রিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা ও ভারতের কালিগুমানে পান্না পাওয়া যায়। তবে ব্রাজিলিয়ান, জাম্বিয়ান ও কলম্বিয়ান পান্নাই বিশ্ব বিখ্যাত। তবে পাকিস্তানের সোয়াতিরাশিয়ার পান্না একসময় জগৎবিখ্যাত হলেও এখন খনি শেষ হওয়ায় আর পাওয়া যায় না।

রাসায়নিক গঠনসম্পাদনা

বেরিল (বেরিলিয়াম অ্যালুমিনোসিলিকেট) এর স্ফটিকের মধ্যে অতি অল্প মাত্রায় ক্রোমিয়াম বা লোহারখাদ থাকলে সবুজ রঙের কেলাস গঠিত হয়।
উপাদান (Chemical Composition): (বেরিলিয়াম অ্যালুমিনোসিলিকেট) Be3Al2(SiO3)6
কাঠিন্যতা (Hardness): 7.5–8
গোত্র (Species): Beryl variety
আপেক্ষিক গুরুত্ব (Specific Gravity): Average 2.76
প্রতিসরণাংক (Refractive Index): 1.566 – 1.600
বিচ্ছুরণ (Dispersion): Low, 0.014

https://i0.wp.com/gemsbdonline.com/wp-content/uploads/2019/01/Emerald-Stone-Benefits-In-Bengali-পান্না-পাথরের-উপকারিতা.png?resize=500%2C215&ssl=1

Benefits of Emerald Stone | পান্না পাথরের উপকারিতা বা গুনাগুণ

জন্ম তারিখ অনুযায়ী যাদের বৃষ রাশি (২১ এপ্রিল থেকে ২১ মে), মিথুন রাশি (২২ মে থেকে ২১ জুন), কন্যা রাশি (২৪ আগস্ট থেকে ২৩ সেপ্টেম্বর) ও তুলা রাশি (২৪ সেপ্টেম্বর অক্টোবর) তাদের জন্য পান্না পাথর ব্যবহার করা উপকারী। সাধারনত যাদের রাশিচক্রে বুধ নামক গ্রহের খারাপ প্রভাব রয়েছে তাদের কে Emerald Stone (পান্না পাথর) ব্যবহার করতে বলা হয়। পান্না পাথর সাধারণত মাস্তিস্ক সংক্রান্ত বিষয় গুলোতে প্রভাব বিস্তার করে থাকে। বিশেষ করে যে সকল মানুষ ভাল চাকুরি করে অথবা ব্যবসায়ের সাথে জড়িত, অথবা যাদের সিদ্ধান্ত গ্রহন সংক্রান্ত কাজ করতে হয় তাদের পান্না পাথর ব্যবহার করতে বলা হয়ে থাকে।
জ্যোতিষী বা জ্যোতিষ শাস্ত্র মতে পান্না পাথর ব্যবহারের উপকারিতা নিম্ন রূপ (Benefits of wearing panna Stone / Benefits of Emerald Stone): (তথ্যসুত্রঃ apnc.co.in)
    1. বুধ গ্রহ যে বিষয় গুলোতে প্রভাব বিস্তার করে থাকে তা হল, ব্যবসায়, যোগাযোগ, প্রেম-ভালবাসা, একজনের সাথে অন্য জনের সম্পর্ক, ইচ্ছা শক্তি, কোন কিছু শেখার ইচ্ছা, আত্ম শক্তি।
    2. যখন বুধ গ্রহ কারো রাশি চক্রে ভালো ভাবে অবস্থান করে তখন মানুষের উন্নতি খুব দ্রুত হতে থাকে। কিন্তু যদি বুধ গ্রহ রাশিচক্রে খারাপ ভাবে অবস্থা করে তাহলে ঠিক এর উল্টো হতে পারে। তাই যাদের বুধ গ্রহের খারাপ অবস্থানের জন্য খারাপ সময় যাচ্ছে তাদের জন্য পান্না পাথর ব্যবহার খুব খুব উপকারী হতে পারে।
    3. পান্না পাথর মানুষের মনোযোগ বৃদ্ধি, স্মৃতি শক্তি বৃদ্ধি, কোন কিছু অর্জনের ইচ্ছা শক্তিকে বৃদ্ধি এবং বিচার বুদ্ধি বৃদ্ধি করতে সাহায্য করতে পারে।
    4. পান্না পাথর ধারনে সন্তান, স্বামী-স্ত্রীর সাথে সুসম্পর্ক বজায় থাকে এবং উচ্চ শিক্ষায় আগ্রহ বৃদ্ধি পেতে পারে।
    5. যে কোন ব্যবসায়িক কাজে পান্না পাথর ব্যবহারে মুনাফা বৃদ্ধি এবং সফলতা আসার সম্ভাবনা অনেক বেশী হতে পারে।
    6. যদি দুজন মানুষ একে অপরের সাথে ভালোবাসার সম্পর্কে আবদ্ধ হয় এবং তারা যদি পান্না পাথর ব্যবহার করে তাহলে তাদের সুখ এবং ভালবাসা দীর্ঘস্থায়ী হতে পারে।
    7. যদি কোন গর্ভবতী মা তার হাতে পান্না পাথর ব্যবহার করেন তাহলে তার নিরাপদ এবং স্বাভাবিক সন্তান জন্ম হবার সম্ভাবনা থাকে।
    8. যে কোন মানুষিক সমস্যায় পান্না পাথর খুব উপকারী। এছাড়া চর্ম রোগ, কোষ্ঠ কাঠিন্য এবং যে কোন প্রকারের বুদ্ধি প্রতিবন্ধীদের জন্য পান্না পাথর ব্যবহার করা উপকারী।
    9. “Tradition of Ahl al Bait” পান্না পাথর সম্পর্কে উল্লেখ করেছে—“পান্না পাথর ব্যবহারে দারিদ্রতা দূর হয় এবং আর্থিক দিকে উন্নতি সাধিত হয় এবং যে পান্না পাথরের আংটি ব্যবহার করবে সে আর্থিক দুর্দশা থেকে মুক্ত থাকবে যদি মহান আলাহতালা ইচ্ছা করেন”।
    10. পান্না পাথর ধারনে সাপ, বিচ্ছু সহ অন্য সকল বিষধর প্রানি দূরে থাকে। (সুত্রঃ Marifat al Jawahir, Syedi Ibrahim Saify)
    11. পান্না পাথর ব্যবহারকারী যদি কোন প্রকারের বিষাক্ত খাদ্য গ্রহন করে ফেলে তাহলে অবিলম্বে তার মুখে ঘাম দেখা দিবে।
    12. পান্না পাথর ব্যবহারে শত্রুদের পরাজিত করতে সাহায্য করে।
    13. পান্না পাথর ধারনে দুশ্চিন্তা দূর হয় এবং এটি কুষ্ঠ রোগ নিরাময়ে সাহায্য করে।
    14. অনেকের মতে, পান্না পাথরের সবুজের দিকে এক দৃষ্টিতে তাকিয়ে থাকলে চোখের দৃষ্টি শক্তি বৃদ্ধি পায়।
    15. পান্না পাথর ধারনে মাথা ঠাণ্ডা থাকে যাতে করে দন্দ-বিরোধ কমে আসে।
    16. যদি স্বামী-স্ত্রী একে অপরের ব্যবহার করা পান্না পাথরের আংটি অদল-বদল করে ব্যবহার করে তাহলে তাদের পারস্পরিক আকর্ষণ বৃদ্ধি পায়।
    17. পান্না পাথর মৃগী রোগে উপকারী, এমনকি সন্তান প্রসবের সময় পান্না পাথর ধারন সন্তান প্রসব সহজ করে।
তথ্যসুত্রঃ www.arcsm.in

Benefits of Wearing Emerald Stone Ring | Benefits of Panna Stone | পান্না পাথরের উপকারিতা বা গুনাগুণ

One thought on “Benefits of Emerald Stone | Benefits of Panna Stone | পান্না পাথরের উপকারিতা বা গুনাগুণ”

  1. ১২ রতি পান্না পাথরের দাম কত? (Original Brazilian)

Leave a Reply