Benefits of Turquoise Stone – ফিরোজা (Firoza) পাথরের উপকারিতা

Gemstone Turquoise এর বাংলা হচ্ছে ফিরোজা, যদিও একে সবাই রাশি রত্ন ফিরোজা পাথর (Rashi Rotno Firoza Pathor) নামেই বেশী চিনে থাকে। পৃথিবীর ইতিহাসে ফিরোজা পাথরের উল্লেখ পাওয়া যায় খ্রিষ্টপূর্ব ৪০০০ বছরের আগে থেকে। এবং জুয়েলারি শিল্পে এর ব্যবহার নানাবিধ। উৎকৃষ্ট মানের ফিরোজা পাথরের রঙ হচ্ছে আকাশি নীল।

প্রাপ্তিস্থান :
ইরানের নিশাপুরি অঞ্চলের ফিরোজা পাথর পৃথিবী বিখ্যাত। যেখান থেকে “শাজারি ফিরোজা” পাওয়া যায়। এছাড়াও আমেরিকা, দক্ষিন কোরিয়ায় ফিরোজা পাথর পাওয়া যায়।

ফিরোজা পাথরের বিশেষ কিছু উপকারিতা:

  1.  ফিরোজা পাথর দারিদ্রতা দূর করে এবং আর্থিক কষ্ট দূর করে”। তিনি সাইয়েদেনা মুফাদ্দালকে উপদেশ দেন ফিরোজা পাথরের আংটি ব্যবহার করতে এবং বলেন “এটা চোখের জ্যোতি বাড়ায়, হৃদযন্ত্র সুস্থ রাখে এবং বুক প্রশস্ত করে”।
  2. ফিরোজা পাথর জাদুটোনা, শয়তান,বিষাক্ত পোকামাকড় ও কু দৃষ্টি থেকে রক্ষা করে।
  3. যদি কেহ ঘুম থেকে উঠেই ফিরোজা পাথর দেখে থাকে তাহলে সকল প্রকার ষড়যন্ত্রকারীর ষড়যন্ত্র থেকে নিরাপদে থাকবেন। মহান আল্লাহ তাকে সকল প্রকার বিপদ থেকে রক্ষা করবেন।
  4. ফিরোজা পাথর চোখের দৃষ্টি শক্তি বৃদ্ধি করে এবং জিবনী শক্তি বৃদ্ধি করে।
  5. হয়রানি থেকে রক্ষা করে এবং শত্রুদের মাঝে জয়ী হতে সাহায্য করে।
  6. ফিরোজা পাথর ধারণে উন্নত চরিত্র দ্বারা সুনাম অর্জনে সাহায্য করে থাকে।
  7. বিষণ্ণতা দূর করে ফিরোজা পাথর।
  8. এই পাথর পাইলস রোগের নিরাময়ে সাহায্য করে।

Turquoise (Firoza) Stone Benefits জ্যোতিষশাস্ত্র মতে ফিরোজা পাথরের উপকারিতাঃ

  • ফিরোজা পাথর ব্যবহারে মনের শক্তি বৃদ্ধি পায়। চিন্তা শক্তি এবং অন্তর্দৃষ্টি প্রখর হয়ে থাকে। ফলে চিন্তা চেতনা আগের থেকে পরিষ্কার ও প্রখর হয়ে থাকে।
  • ফিরোজা পাথর কে সৌভাগ্যর পাথর বলা হয়ে থাকে। এ পাথর ব্যবহারে আল্লাহ্‌র চাইলে ব্যবহারকারীর ভাগ্য প্রসন্ন হতে পারে।
  • ফিরোজা কে একটি বিশুদ্ধ পাথর মনে করা হয়। মানুষিক চাপ হ্রাস করা, দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা করা থেকে শুরু করে নানান উপকার পাওয়া যায়।
  • যে সকল মানুষ ছায়াছবি, ফ্যাশন , টেলিভিশন , জুয়েলারি , হিসাববিদ্যা , আইন , শিক্ষা ও পোশাক শিল্প্র মত ক্ষেত্র এর সাথে সম্পর্কিত তাদের জন্য বিশেষ উপকারী। শিক্ষক,লেখক,পণ্ডিত এবং শিক্ষার্থী,শিক্ষা ও বিশেষ করে যারা সৃজনশীল কাজের সাথে জড়িত তাদের জন্য খুব উপকারী এ পাথর।
  • কথিত রয়েছে যে ফিরোজা পাথরের রঙ এবং উজ্জলতা বলদে যায় যখন এর ব্যবহারকারী কোন ভাবে শারীরিক ও মানুষিক ভাবে বিপদ্গ্রস্থ হয়ে পরে।
  • ফিরোজা পাথর ব্যবহারে মানুষের মনে দয়া, দানশীলতার অনুভূতি বৃদ্ধি পায়।
  • বন্ধুর সাথে সম্পর্ক, ভালোবাসার মানুষটির সাথে সম্পর্কে এবং পারিবারিক সম্পর্কে ফিরোজা পাথর আস্থার জন্ম দেয়।
  • হাঁপানি,বাড়তি মদ্যাশক্তি,বিষণ্নতা,উচ্চ রক্তচাপ,মাইগ্রেইনস,ভাইরাল সংক্রমণ,বা টক্সিনের মত শারীরিক অসুস্থতায় ফিরোজা পাথর উপকারী। .
  • যে সকল মানুষকে খুব বেশী ভ্রমন করতে হয় তাদের জন্য ফিরোজা পাথর ব্যবহার উপকারী। যে কোন প্রকার দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পাওয়া যেতে পারে।
  • বিবাহিত জীবনে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে বোঝাপড়া, আস্থা, ভালোবাসা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে ফিরোজা পাথর।

এছাড়াও ফিরোজা পাথরের আরো কিছু উপকারিতাঃ

  • এই পাথর বেনিফিট মানব শরীরের স্বাস্থ্য এবং থেরাপিউটিক বেনিফিট হয়। এর অধিকাংশ উপাদান তামা ফসফেট হয়। বাতের রোগীদের জন্য কপার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ খনিজগুলির মধ্যে একটি
  • টিউমার গ্রান্ড, একটি গ্রন্থি যা শরীরের ইমিউন সিস্টেমের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশ ।
  • প্রতিষেধক সিস্টেমের জন্য সমর্থন, যৌথ প্রদাহ হ্রাস, যেমন: রাউমাটয়ড, এবং হাঁটু এর কার্তুয়াল দৃঢ়তা.

তথ্যসুত্রঃ www.arcsm.in

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *